ম্যাচের প্রথম অর্ধে আধিপত্য দেখায় পেরু। জালের দেখাও পায় তারা। কিন্তু বিরতির পর পাল্টে যায় দৃশ্যপট। খোলস থেকে বের হয়ে আসে কলম্বিয়া। তাতে শেষ হাসি হেসেছে রেইনালদো রুয়েদার শিষ্যরা।

চলমান কোপা আমেরিকার তৃতীয় স্থান নির্ধারণী ম্যাচে আজ বাংলাদেশ সময় ভোর ৬টায় পেরুর মুখোমুখি হয় কলম্বিয়া। ব্রাসিলিয়ার মানে গারিঞ্চা স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচটিতে ৩-২ ব্যবধানের জয় নিয়ে তৃতীয় হয়েছে কলম্বিয়া।

এর আগে কোপা আমেরিকার দ্বিতীয় সেমিফাইনালে আর্জেন্টিনার সাথে দারুণ লড়াই করে কলম্বিয়া। নির্ধারিত ৯০ মিনিটে ১-১ গোলে ড্র থাকায় ম্যাচ টাইব্রেকারে গড়ায়। সেখানে ৩-২ ব্যবধানে জয় তুলে নেয় লিওনেল স্ক্যালোনির শিষ্যরা।

আজ পেরুর সাথে বল দখলে পিছিয়ে ছিল কলম্বিয়া। পুরো খেলায় ৪৫ শতাংশ বল নিজেদের দখলে নিয়ে গোলমুখে ১২টি শট নেয় তারা। এর মধ্যে ৬টি ছিল লক্ষ্যে। অন্যদিকে পেরুর নেয়া ১০ শটের লক্ষ্যে ছিল মাত্র ৩টি। আর ম্যাচের পাঁচ গোলের চারটিই হয়েছে বিরতির পর।

খেলার ৪৫তম মিনিটে এগিয়ে যায় পেরু। ক্রিশ্চিয়ান কুয়েভার পাস থেকে বল জালে জড়ান ইয়োশিয়াম ইয়োতুন। তবে বিরতি থেকে ফেরার চার মিনিট পরই সমতায় ফেরে কলম্বিয়া। ডি বক্সের বাইরে থেকে দুর্দান্ত এক ফ্রি কিকে লক্ষ্যভেদ করেন হুয়ান কুয়াদরাদো।

৬৬ মিনিটের মাথায় এগিয়ে যায় কলম্বিয়া। পাল্টা আক্রমণে কামিও ভারগাসের পাস থেকে ঠিকানা খুঁজে নেন লুইস ডিয়াজ। পিছিয়ে পড়ে মরিয়া হয়ে ওঠে পেরু। ৮২তম মিনিটে সমতায়ও ফেরে তারা। রাফায়েল গার্সিয়ার অ্যাসিস্ট থেকে জালের দেখা পান জিয়ানলুকা লাপাদুলা।

২-২ সমতায় থাকা ম্যাচের অতিরিক্ত সময়ের চতুর্থ মিনিটে ফের এগিয়ে যায় কলম্বিয়া। ডি বক্সের বাইরে থেকে ডিয়াজের করা বুলেট গতির শট আটকাতে পারেননি পেরুর গোলরক্ষক গেলাসে। যাতে ৩-২ ব্যবধানে জিতে এবারের কোপায় তৃতীয় হয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হয় কলম্বিয়াকে।